মাদারীপুরে ২৯ জন কোয়ারেন্টাইনে

134

মাদারীপুরে ২৯ জনকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এক ইতালি প্রবাসী সম্প্রতি মাদারীপুরে আসেন। পরে তার শরীরে করোনাভাইরাসের বিভিন্ন উপসর্গ দেখা দিলে তিনি সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানকে (আইইডিসিআর) জানান।

পরে তাকে ঢাকায় আইসোলেশনে রাখা হয়। একই সঙ্গে তিনি এলাকায় যাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন এমন ২৯ জনকে চিহ্নিত করে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

মাদারীপুরের সিভিল সার্জন ডা. মো. শফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এসব নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে হাঁচি-কাশির সময় নিয়ম মেনে চলতে হবে। এছাড়া প্রয়োজন ছাড়া জনসমাগম না করার অনুরোধ করেন তিনি।

এদিকে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মাদারীপুর সদর হাসপাতালের নতুন ভবনে ১০০ শয্যা ও সদর হাসপাতালের পুরোনো ভবনের দুটি কেবিনের চারটি বেড প্রস্তুত করা হয়েছে। এছাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে দুটি করে বেড প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত রবিবার বিকেলে দেশে করোনা ভাইরাসে তিনজন শনাক্ত হওয়ার ঘোষণা দেয় আইইডিসিআর। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে তখন বলা হয়, এই তিনজনের মধ্যে দুজন ইতালি থেকে সম্প্রতি দেশে ফিরেছেন। তাঁদের কাছে থেকে একজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

মঙ্গলবার আইইডিসিআর পরিচালক বলেন, ইতালি থেকে আসা প্রবাসী বাঙালিদের কাছাকাছি এসেছেন—এমন চারজনকে কোয়ারেনটাইনে রাখা হয়েছে। এছাড়া বিদেশ থেকে আসা আরও বেশ কিছু ব্যক্তিকে বাড়িতে কোয়ারেনটাইন করে রাখা হয়েছে। তবে কতজনকে বাড়িতে কোয়ারেনটাইন করে রাখা হয়েছে, সে সংখ্যা তিনি জানাননি।

  • মীরজাদী সেব্রিনা বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় সাতজনের নাক-মুখের লালা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে কেউ আক্রান্ত হয়নি।