বগুড়ার ধুনটে বসত বাড়ীর সিমানা ঘেঁষে পুকুর খনন করায় থানায় অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী চৌকিবাড়ী ইউনিয়নের বিশ্বহরিগাছা গ্রামের আলাউদ্দিন খানের ছেলে মোঃ ফারাইজুল ইসলাম খান।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ফারাইজুল ইসলাম খান ও ইছাহাক আলী খানের ছেলে মিন্টু খানের বাড়ীর সিমানা ঘেঁষে পশ্চিম পার্শ্বে ফসলি জমি কেটে পুকুর খনন করেছেন প্রতিপক্ষ এক‌ই গ্রামের মৃত সাহেব উদ্দিন খানের ছেলে আব্দুর রহমান খান ও আব্দুস সালাম খান এবং তাদের ভাতিজারা।

অভিযোগে বলেছেন পূর্ব সত্রুতার কারণে ইচ্ছাকৃত ক্ষতিসাধন করার লক্ষ্যে তাদের দখলীয় ত্রিশ শতাংশ আবাদি জমিতে আমাদের বাড়ীর কোল ঘেঁষে কোন প্রকার পাড় বাঁধায় ছাড়া পুকুর খনন করেছেন । ইহাতে বৃষ্টি হলে আমাদের বাড়ি ঘর ভেঙে পুকুরে চলে যাবে । তাতে আমাদের চরম ক্ষতি হবে বাড়ি ঘর সরিয়ে অন্যত্র চলে যেতে হবে । এর কারণে ভবিষ্যতে শান্তি ভঙ্গো ঘটতে পারে বা মারামারি হানাহানি সহ অস্থিতিশিল পরিস্থিতির তৈরি হতে পারে। বিধায় উক্ত পুকুর খনন বন্ধে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী কমিশনার ভূমি বরাবরে আবেদন এবং ধুনট থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার সঞ্জয় কুমার মহন্ত বলেন, অভিযোগ পেয়েছি করোনার কারনে মুভমেন্ট করতে পারছিনা একটু শিথিল হলে বিষয়টি দেখে ব্যাবস্থা নেব।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, অভিযোগ পেয়েছি সাব ইন্সপেক্টর আব্দুর রাজ্জাককে বিষয়টি দেখে ব্যাবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।