বাবার লাশ বাড়িতে রেখে পরীক্ষা দিচ্ছে বিথী

99

ফরিদপুরে সদরপুর উপজেলায় এসএসসি পরীক্ষার্থী বিথী আক্তারের বাড়িতে চলছে তার বাবার মরদেহ দাফনের প্রস্তুতি। এমন অবস্থায় বাবার মরদেহ বাড়িতে রেখেই পরীক্ষা দিচ্ছে মেয়েটি।

বিথী উপজেলার চন্দ্রপাড়া সুলতানিয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। সে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী। রোববার উপজেলার বিশ্ব জাকের মঞ্জিল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয় মেয়েটি।

এলাকাবাসী জানান, উপজেলার চন্দ্রপাড়ার রাজারচর কাঠতলা মোড় এলাকার বাসিন্দা আনোয়ার আলী (৫০) সকালে নিজ বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেন। তিনি পেশায় কৃষক ছিলেন।

আনোয়ার আলীর দুই ছেলে ও চার মেয়ে রয়েছে। দুপুরে বাবার মরদেহের জানাজার সময় নির্ধারণ করা হয়। তারপরও সেজ মেয়ে বিথী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। বাবাকে হারিয়ে কাঁদতে কাঁদতে পরীক্ষা দেয় সে। তবে পরীক্ষা শেষে বিথী বাড়ি ফিরলেই বাবার দাফন সম্পন্ন হবে।

এ বিষয়ে বিথী আক্তার জানায়, পারিবারিকভাবে অস্বচ্ছল থাকার পরও বাবার প্রবল ইচ্ছার জেরে বিথী এবার এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে। বাবা তাকে অনেক ভালোবাসতেন। বাবা চাইতেন, সে যেন পড়ালেখা করে অনেক বড় হয়। এ জন্যই বাবার আশা পূরণ করতেই আজ পরীক্ষা দিচ্ছে সে।

পরীক্ষায় দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সজল চন্দ্র শীল বলেন, বাবাকে হারানো যে কোনো সন্তানের জন্য খুবই কষ্টদায়ক। তারপরও মেয়েটি বাবা হারানোর কষ্ট নিয়ে পরীক্ষা দিচ্ছে।

সদরপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. জালাল উদ্দিন জানান, বাবার মরদেহ বাসায় রেখে পরীক্ষা দিচ্ছে মেয়েটি। তবে সে স্কুলে আসার পর বিষয়টি জানতে পেরেছি। মেয়েটিকে সান্তনা দিয়েছি।