1. bslbarta@gmail.com : BSL BARTA : Golam Rabbi




হরভজনকে ‘খেলরত্ন’ পুরস্কার দিয়ে আবারও ফেরত!

বিএসএল বার্তা ডেস্ক
  • প্রকাশিত সময় : শনিবার, ১৮ জুলাই, ২০২০
  • ৫৭ বার পড়া হয়েছে

এক বিব্রতকর ঘটনা ঘটে গেল ভারতীয় ক্রিকেটে। ‘খেলরত্ন’ পুরস্কারের জন্য ভারতের সাবেক অফস্পিনার হরভজন সিংয়ের নাম দিয়েও পরে সেটা আবার ফেরত নিয়েছে পাঞ্জাব সরকার। এ নিয়ে ক্রিকেটাঙ্গনে ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়। সেই বিতর্কে এবার জল ঢেলে হরভজন বলেছেন, ‘ওটা পাঞ্জাব সরকারের ভুল নয়। আমিই আসলে খেলরত্ন পুরস্কারের যোগ্য নই।’ ২০১৬ সালের পর থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সুযোগ পাননি হরভজন।

৪০ বছর বয়সী হরভজন আজ শনিবার টুইটারে লিখেছেন, প্রিয় বন্ধুরা, আমার কাছে প্রচুর ফোন আসছে। মানুষ জানতে চাইছেন যে, কেন পাঞ্জাব সরকার খেলরত্ন পুরস্কারের মনোনয়ন থেকে আমার নাম সরিয়ে নিল? আসল সত্যিটা হলো, আমি ওই পুরস্কারের যোগ্য নই। কারণ এই পুরস্কার পেতে হলে শেষ ৩ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পারফরম্যান্স পরিসংখ্যানে থাকতে হয়। পাঞ্জাব সরকারের কোনো ভুল করেনি। আমার নাম তুলে নিয়ে তারা ঠিকই করেছে। আমার বন্ধুবান্ধব এবং মিডিয়ার কাছে অনুরোধ করব, কোনো গুজব না রটাতে। সবাইকে অনেক ধন্যবাদ।

উল্লেখ্য, গত বছরও হরভজন সিংয়ের সঙ্গে এই একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হয়েছিল। সেবার রাজ্যের ক্রীড়ামন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছিল যে, হরভজনের ডকুমেন্ট তাদের কাছে দেরিতে পৌঁছার কারণে এই ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু এই ঘটনায় ক্ষেপে গিয়েছিলন হরবজন। পাঞ্জাবের ক্রীড়ামন্ত্রী রানা গুরমিত সিংকে তিনি বিষয়টি খতিয়ে দেখার অনুরোধ জানান। ঘটনা তদন্তও হয়েছিল। সেই বাজে স্মৃতির কারণেই কি এবার হরভজন নিজের নাম প্রত্যাহারকে সমর্থন করলেন?

আজ আরও একটি টুইটে ভারতের সাবেক এই অফস্পিনার লিখছেন, আমার খেলরত্ন পুরস্কারের জন্য অনেক ধন্দ্ব এবং গুজব রটেছে। হ্যাঁ গত বছর আমাকে মনোনয়ন পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু চলতি বছর পাঞ্জাব সরকারকে আমার নাম তুলে নিতে বলেছি। কারণ গত তিন বছরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আমি কোনো ম্যাচ খেলিনি। বিষয়টা নিয়ে কেউ আর জলঘোলা করবেন না।




নিউজটি শেয়ার করুন...

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর..






















© All rights reserved © 2019 bslbarta.com
Customized By BSLBarta Team