1. bslbarta@gmail.com : BSL BARTA : Golam Rabbi
বাণিজ্য চুক্তি নিয়ে আশাবাদী ট্রাম্প-জিনপিং - বিএসএল বার্তা




বাণিজ্য চুক্তি নিয়ে আশাবাদী ট্রাম্প-জিনপিং

আন্তর্জাতিক ডেক্সঃ
  • প্রকাশিত সময় : সোমবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৯
  • ২৪ বার পড়া হয়েছে

যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে গত প্রায় দেড় বছর ধরে বাণিজ্য যুদ্ধ চলছে। বাণিজ্য সমস্যা সমাধানে উভয় পক্ষের মধ্যে একাধিক বৈঠক হলেও এখনও কোনো সমাধানে পৌঁছাতে পারেনি বিশ্বের বৃহৎ অর্থনীতির দুই দেশ। কিন্তু এবার প্রাথমিক চুক্তি নিয়ে উভয় দেশের রাষ্ট্রপ্রধান তাদের ইতিবাচক মনোভাবের কথা জানিয়েছেন।

দীর্ঘদিন পর বাণিজ্য যুদ্ধ নিয়ে মুখ খুলে সম্প্রতি বাণিজ্য চুক্তির ব্যপারে আশা প্রকাশ করেছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। তারপরই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছেন, চীনের সঙ্গে বাণিজ্য চুক্তির সম্ভাবনা অনেকটাই জোরালো হয়ে উঠছে। তবে চুক্তিটি ঠিক কখন হবে সে বিষয়ে এখনো কেনো নিশ্চয়তা দিতে পারেননি কেউই।

চীনা প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা হুয়াওয়েকে কালো তালিকাভুক্ত করা থেকে শুরু করে মার্কিন কোম্পানিগুলোর চীনে ব্যবসা করার বিধিনিষেধ এবং দফায় দফায় উভয় দেশ একে অপরের বাণিজ্যে শুল্ক আরোপ করেছে। সম্প্রতি হংকংয়ে চীন বিরোধী বিক্ষোভ নিয়ে মার্কিন সিনেটে বিল পাসের পর আরও উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে বেইজিং-ওয়াশিংটন সম্পর্ক।

এমন পরিস্থিতিতে শি জিনপিং জানিয়েছেন, বাণিজ্য যুদ্ধে ইতি টানতে প্রাথমিক চুক্তি করার জন্য চীন সবরকম চেষ্টা করে যাচ্ছে। পারস্পরিক চাহিদা ও সমতা বজায় রেখেই প্রথম পর্যায়ের বাণিজ্য চুক্তি করতে চায় তার দেশ। এ ব্যাপারে তিনি যথেষ্ট আশাবাদী বলেও জানিয়েছেন।

কিন্তু একইসঙ্গে চীনা প্রেসিডেন্ট হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, বাণিজ্য যুদ্ধ নিয়ে তার দেশ কিংবা তার সরকার ভীত নয়। যখন প্রয়োজন হবে তখনই সেই লড়াই চালিয়ে যেতে বেইজিং প্রস্তুত আছে বলে জানিয়েছেন তিনি। তার কথায়, চীন বাণিজ্য যুদ্ধ শুরু করেনি আর তারা চান না এই যুদ্ধ চলতে থাক।

শি জিনপিংয়ের এমন ঘোষণার পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, চীনের সঙ্গে চুক্তির সম্ভাবনা উজ্জ্বল হয়েছে। তবে তার মতে, চীন ইতোমধ্যেই দ্বি-পাক্ষিক বাণিজ্যে অনেক সুবিধা পেয়েছে। ফলে চীনা প্রেসিডেন্টের সমতা বজায় রাখার কথায় তিনি খুব একটা খুশি নন।

ট্রাম্প বলেন, ‘আমি প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে বলেছি, এটা কখনোই সমান চুক্তি হতে পারে না। আমরা (যুক্তরাষ্ট) মাটি থেকে শুরু করছি এবং আপনারা এখনই ছাদে উঠে বসে আছেন।’ হংকংয়ের বিক্ষোভকারী এবং চীনা প্রেসিডেন্ট উভয়ের সঙ্গেই যুক্তরাষ্ট্র আছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এমন অবস্থায় অবশ্য চলতি বছরের মধ্যে বাণিজ্য চুক্তির সম্ভাবনা দেখছেন না বিশেষজ্ঞরা। গত শনিবারই বাণিজ্য আর হংকংয়ের মতো নানা বিষয় যুক্তরাষ্ট্রকে হুশিয়ার করেছে চীন। এই অবস্থায় কতদিনে শুল্ক যুদ্ধের সমাধান হবে তা এখন বলা যাচ্ছে না।

জি এস




নিউজটি শেয়ার করুন...

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর..






















© All rights reserved © 2019 bslbarta.com
Customized By BSLBarta Team