1. bslbarta@gmail.com : BSL BARTA : Golam Rabbi
বগুড়ায় করোনায় আকাশে নানা রঙের ঘুড়ি  - বিএসএল বার্তা




বগুড়ায় করোনায় আকাশে নানা রঙের ঘুড়ি 

আব্দুর রাজ্জাক বগুড়া জেলা প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত সময় : বুধবার, ১৩ মে, ২০২০
  • ৯৩ বার পড়া হয়েছে

প্রাণঘাতী করোনার প্রভাবে সকলের এখন ঘরই ঠিকানা। ঘরে বসে টিভি দেখে, পেপার পড়ে,লুডু খেলে, ফেসবুকে থেকেও সময় যেন আর কাটতে চাইনা। তাই তো নানা রঙের ঘুড়ি উড়িয়ে বিকেল কাটিয়ে দিচ্ছে বগুড়া শহরের বিভিন্ন এলাকার ছোট বয়সের মানুষ। এক ঘেয়েমি থেকে বের হয়ে হাতের স্মার্ট ফোন রেখে নিজের বাড়ির উঠান কিম্বা বাড়ির ছাদে ছেলে, মেয়ে, শিশু উৎসব আকারে ঘুড়ি উড়াচ্ছে এক সাথে। ইচ্ছেমত ঘুড়ি উড়াতে উড়াতে কখনও পাশে থাকা ঘুড়িটির সুতো কেটেও দিচ্ছেন। এতে আনন্দ যেন বাড়ছে। পাশাপাশি ছাদে থাকা দুই পরিবার ঘুড়ি উড়িয়ে আনন্দ ভাগাভাগি করে নিচ্ছেন অনেকে। ছেলে বুড়ো সবাই এই উৎসবে অংশ নিয়ে আকাশকে রাঙিয়ে তুলছেন বিভিন্ন রঙে। ঢাকাসহ কয়েকটি এলাকায় চৈত্রসংক্রান্তিসহ বিভিন্ন সময়ে ঘুড়ি উড়ানোর উৎসব হয়ে থাকে। সেখানে বিভিন্ন রঙের আর নামের ঘুড়ি আকাশে উড়তে দেখা যায়। এবার সেই নিয়মের হয়তো একটু ব্যতিক্রম হলো। লকডাউনে ছাদে উড়ছে ঘুড়ি। আর সেই ঘুড়ি উড়া দেখে পরিবারের সদস্যরা খানিকটা বিনোদনও পেয়ে যাচ্ছে। গত কয়েকদিন ধরেই বগুড়া শহরের ঠনঠনিয়া, কলোনী, মালতিনগর, জলেশ্বরীতলা, কাটনারপাড়া, চেলোপাড়া, ফুলবাড়ি, খান্দার, মালগ্রাম, ষ্টেডিয়াম, ষ্টেশ রোড, শেরপুর,বগুড়ার প্রবেশদ্বার সীমাবাড়ীসহ বিভিন্ন এলাকায় বাড়ির ছাদে উঠে দল বেঁধে ঘুড়ি উড়াচ্ছে। সুতোয় যেন তাদের বিনোদন বেঁধেছে। সুতো দিয়ে আকাশে কাগজের রঙিন ঘুড়ি উড়িয়ে যেন নিজের মুক্তমনের আনন্দ যোগান দিয়ে যাচ্ছে। কিছু কিছু এলাকায় পরিবারের সকলেই দুপুরের পর ঘুড়ি উড়ানোর নেশায় মত্ত হচ্ছেন।বগুড়া শহরের বিভিন্ন এলাকায় ঘুড়ি বিক্রির ধুমও পড়ে গেছে। বিভিন্ন নামের ঘুড়ি বিক্রি হচ্ছে ১০ থেকে ১৫০ টাকার মধ্যে। দুই রং নিয়ে তৈরী ঘুড়ি দোরঙা বলা হচ্ছে। চং ঘুড়িও আছে। নকশা করা ঘুড়িও বিক্রি হচ্ছে। রঙিন কাগজের পাশাপাশি এবার প্লাস্টিকের ঘুড়িও বিক্রি হচ্ছে। ঘুড়ির পাশাপাশি একেকটি নাটাই বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১২০ টাকা করে। সুতা বিক্রি হচ্ছে ১০ থেকে ২০ টাকার মধ্যে। আরো বড় আকারের সুতা নিলে ৪০ টাকা নিচ্ছে। এসব সুতা শক্ত করতে আটাসহ বিভিন্ন উপকরন ব্যবহার করে সুতা মাজা করেন অনেকেই। এতে অন্যের ঘুড়ি কাটতে সুবিধা হয়।

বিকেল হলেই নানা বয়সের মানুষ বেড়িয়ে পড়ছেন আকাশ কে রাঙিয়ে দিতে বিভিন্ন রঙের ঘুড়ি হাতে। প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে লকডাউন কালীন একটু স্বস্তির নিঃশ্বাস নিচ্ছে বলে জানান ঘুড়ি ওড়াতে আসা নানা বয়সের মানুষ।




নিউজটি শেয়ার করুন...

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর..






















© All rights reserved © 2019 bslbarta.com
Customized By BSLBarta Team