ষড়যন্ত্রকারীদের বিরোধিতায় চুন কালি দিয়ে গ্রাম গঞ্জের মানুষের জীবন রক্ষায় জনগনের দোরগোড়ায় পৌঁছে গেছে আজ করোনা মহামারির গনটিকার সেবা কার্যক্রম।

করোনা ভাইরাসে সারাবিশ্ব যখন বিপর্যস্ত সেই মুহূর্তে করোনাভাইরাস থেকে দেশের জনগনকে বাঁচাতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজের জীবন বাজি রেখে বর্তমান পরিস্থিতি থেকে মানুষের জীবন রক্ষার যুদ্ধে অবিরাম নিরলসভাবে কাজ করছেন।

করোনা ভাইরাস নিয়ে একটি দেশবিরোধী মহল নানা ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে । সকল ষড়যন্ত্র প্রত্যাখ্যান করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ করোনা ভাইরাস থেকে মানুষের জীবন রক্ষার জন্য ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে সকল কার্যক্রম এগিয়ে যাচ্ছে। এসব ষড়যন্ত্রকারীদের মুখে চুনকালি দিয়ে করোনাভাইরাস এর হাত থেকে মানুষের জীবন রক্ষার জন্য গ্রাম গঞ্জের মানুষের দোরগোড়ায় আজ গণ টিকার সেবা পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।

শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বের মধ্য দিয়ে মহামারী করোনাভাইরাস এর সেবা গ্রহণ করছেন গ্রাম গঞ্জের সাধারণ মানুষ।

শনিবার সকালে বগুড়ার শেরপুরে শুরু হওয়া ইউনিয়ন পর্যায়ে গনটিকা কার্যক্রম কেন্দ্র পরিদর্শনের সময় উপরোক্ত কথা গুলো বলেন বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মজিবর রহমান মজনু।

৭আগস্ট শনিবার বগুড়ার শেরপুর উপজেলার সব গুলো ইউনিয়নে প্রাথমিক পর্যায়ে গণটিকা কার্যক্রম শুরু হয়।

গনটিকা কেন্দ্র পরিদর্শন দলের নেতৃত্বে ছিলেন শেরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ময়নুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শাহ জামাল সিরাজী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এডভোকেট আলহাজ গোলাম ফারুক, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার আব্দুল কাদের,ভবানীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ সহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ। নেতৃবৃন্দ মির্জাপুর,ভবানীপুর,সীমাবাড়ি,শাহ বন্দেগি সহ উপজেলার সবগুলো টিকা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দশটি ইউনিয়ন এবং পৌরসভাসহ সাড়ে ৬ হাজার মানুষকে এই গনটিকা প্রাথমিক সেবার আওতায় আনা হয়েছে । গনটিকা কেন্দ্র পরিদর্শনকালে নেতৃবৃন্দ ভবানিপুর দাখিল মাদ্রাসায় বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার পরিদর্শন করেন।