বরিশালের বানারীপাড়ার বাইশারী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি তাজেম আলী হাওলাদারকে দল থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

শনিবার (১৯ জুন) বিকেল ৫টায় বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুস স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে বাইশারী ইউপি নির্বাচনে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান তাজেম আলী হাওলাদার ও তাকে সহায়তা করার অভিযোগে তার ছেলে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফোরকান আলী হাওলাদারকে বহিষ্কারের সুপারিশ করা হয়।

মঙ্গলবার (১৫ জুন) বিকেলে উপজেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় তাদের বহিষ্কারের এ সুপারিশ করে জেলা কমিটির কাছে পাঠানো হয়। দলীয় কার্যালয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম সালেহ মঞ্জু মোল্লার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই বিশেষ বর্ধিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট সুভাষ চন্দ্র শীল, উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব গোলাম ফারুক, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাওলাদ হোসেন সানা, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি সুব্রত লাল কুন্ডু প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, বাইশারী ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকার টিকিট পান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শ্যামল চক্রবর্তী। মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে স্বতন্ত্র ব্যানারে আনারস প্রতীক নিয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বাইশারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান তাজেম আলী হাওলাদার। গত নির্বাচনেও তিনি বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় বহিষ্কার হয়েছিলেন। পরে তার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়। এবার একই অভিযোগে তাকে দ্বিতীয়বারের মতো বহিষ্কার করা হলো।